করোনা সন্দেহে নারীকে জঙ্গলে ফেলে গেল পরিবার

আজ মঙ্গলবার সকালে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, সোমবার রাত আটটার দিকে জঙ্গলে কান্নার আওয়াজ শুনে এলাকার লোকজন স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদকে বিষয়টি জানান।

পরে ওই ইউপি সদস্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মিয়াসহ অন্যান্যদের নিয়ে সেখানে গেলে পঞ্চাশোর্ধ ওই নারী তাদের জানায় তার স্বামী-সন্তানরা তাকে এক রাত সেখানে থাকতে বলে রেখে গেছে। পরের দিন এসে নিয়ে যাওয়ার কথা।

এরপর বিষয়টি তারা টেলিফোনে সখীপুরের উপজেলা নির্বাহী (ইউএনও) কর্মকর্তা আসমাউল হুসনা লিজাকে অবগত করেন।

খবর পেয়ে রাত ১২টায় ইউএনও পুলিশ ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক শাহীনুর আলমসহ চিকিৎসা দল নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। করোনার উপসর্গ থাকায় রাত দেড়টার দিকে ওই নারীকে একটি অ্যাম্বুলেন্স চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ইউএনও দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, বিষয়টি অমানবিক। মহিলাটি জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও গলাব্যথা ছিল। সে তার ঠিকানা এবং তাকে কীভাবে এখানে আনা হয়েছে তা ঠিকভাবে বলতে পারেনি।